জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ ট্রান্সফার হওয়ার নিয়ম (NU TC Rules)

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ ট্রান্সফার হওয়ার নিয়ম (National University-NU TC Apllication Rules)। সরকারি-বেসরকারি অনার্স/পাস কলেজ পরিবর্তনের নিয়মাবলী সম্পর্কে জানুন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকারি-বেসরকারি অনার্স/পাশ কলেজ থেকে ট্রান্সফার হওয়ার নতুন নিয়ম (NU TC Rules)

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এক কলেজ থেকে অন্য কলেজে ট্রান্সফার হওয়ার নতুন নিয়ম প্রকাশ করেছে।  সরকারি কলেজ থেকে সরকারি কলেজ/বেসরকারি কলেজ অথবা বেসরকারি কলেজ থেকে বেসরকারি কলেজে ট্রান্সফার হওয়া যাবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে স্নাতক (অনার্স/পাস) শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ছাড়পত্রের মাধ্যমে (TC) কলেজ পরিবর্তনের নিয়মাবলী প্রকাশ করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুলের ডিন (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোঃ নাসির উদ্দিন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে, টিসির মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

২৪ মে ২০২২ খ্রি. তারিখে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সরকারি ও বেসরকারি অনার্স ও পাস কোর্সের শিক্ষার্থীদের কলেজ ট্রান্সফারের নিয়মাবলী প্রকাশ করা হয়।

আরো জানুন:

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি আবেদন ২২ মে-৯ জুন ২০২২

অনার্স ১ম বর্ষের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২২ প্রকাশ করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তির মেধা তালিকা রেজাল্ট প্রকাশ যেভাবে

ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ ট্রান্সফার করার নতুন নিয়ম ২০২২

১। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী স্নাতক ১ম বর্ষে উত্তীর্ণ হওয়ার পর কলেজ ট্রান্সফার এর জন্য আবেদন করতে পারবে।

তবে সরকারী কলেজ হতে সরকারি ও বেসরকারি কলেজ, বেসরকারি কলেজ হতে বেসরকারি কলেজ ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে।

কিন্তু বেসরকারি কলেজ হতে সরকারি কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে না।

২। চাকুরীরত অভিভাবক (পিতা/মাতা| স্বামী) অন্য জেলায় বদলী হলে, পিতা/মাতা জীবিত না থাকলে/অসমর্থ হলে আইনানুগ অভিভাবকের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিতে হবে।

শুধুমাত্র সরকারী, স্বায়ত্তশাসিত ও আধা-সরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত অভিভাবকের বদলী জনিত কারণে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে।

চাকুরীরত অভিভাবকের বদলীর আদেশ, যোগদানপত্র, চাকুরীর আইডি কার্ড ও অভিভাবকের সম্মতিপত্র আবেদনের সাথে সংযুক্তি করতে হবে।

৩। মেয়ে শিক্ষার্থী বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলে (স্নাতক সম্মান/পাস শ্রেণীতে ভর্তির পর), সে ক্ষেত্রে বিবাহের কাবিননামা, স্বামী যে প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করেন তার প্রত্যয়নপত্র, যোগদানপত্র, জাতীয় পরিচয়পত্র/অন্য কর্মে নিয়োজিত তার প্রামাণ্যপত্র যুক্ত করতে হবে।

হিন্দু, খ্রীস্টান ও বৌদ্ধদের ক্ষেত্রে কাবিননামা না থাকলে ১ম শ্রেণীর গেজেটেড কর্মকর্তা কর্তৃক/ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অথবা ওয়ার্ড কাউন্সিলর কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র, স্বামী-স্ত্রীর যৌথ ছবি ও বিয়ের দাওয়াত পত্র আবেদনের সাথে যুক্ত করতে হবে।

৪। শিক্ষার্থী তার স্থায়ী ঠিকানার নিকটবর্তী কলেজে যৌক্তিক কারণে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে ।

যদি তার নিজ জেলার কোন কলেজে তার পঠিত বিষয়টি অধিভুক্তি না থাকে তাহলে পার্শ্ববর্তী জেলার নিকটবর্তী কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে।

সে ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীর নিজের/পিতা/মাতা এর জাতীয় পরিচয়পত্র ও অভিভাবকের মতামত পত্র জমা দিতে হবে। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি বিবেচনার যোগ্য মনে করলে ছাড়পত্র (টিসি) দিবেন।

৫। অভিভাবকের মৃত্যুজনিত কারণে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে, যদি অভিভাবক সদ্য মৃত্যুবরণ করেন সে ক্ষেত্রে ডাক্তার কর্তৃক ডেথ সার্টিফিকেট এর কপি অথবা চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রত্যয়নপত্র জমা দিতে হবে।

অভিভাবকের মৃত্যুজনিত কারণে অভিভাবকের দায়িত্ব যার উপর অর্পিত হয়েছে তার সম্মতিপত্র তার পেশা ও কর্মস্থল সংক্রান্ত প্রামাণ্য পত্র ও জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে।

৬। শিক্ষার্থী প্রতিবন্ধী হলে প্রতিবন্ধী বিষয়ে সমাজকল্যাণ অধিদপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র জমা দিতে হবে।

৭। একই জেলায় অবস্থিত দুটি কলেজের মধ্যে ছাড়পত্রের অনুমোদন দেয়া যাবে না। তবে বিশেষ কারণবশত মেয়ে শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে উক্ত শর্ত শিথিলযোগ্য।

৮। শতবর্ষী কলেজ হতে সকল সরকারি-বেসরকারি কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে।

কিন্তু শতবর্ষী ব্যতিত অন্য কোন সরকারি-বেসরকারি কলেজ থেকে শতবর্ষী কোন কলেজে ছাড়পত্রের জন্য আবেদন করতে পারবে না।

৯। সংশ্লিষ্ট কলেজের শিক্ষা কার্যক্রম/বিষয়ের অধিভুক্ত স্থগিত হলে এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পরিদর্শন দপ্তর কর্তৃক প্রদত্ত অধিভুক্তি বাতিলের পত্র সংযুক্ত করতে হবে।

১০। আবেদনের সাথে রেজিস্ট্রেশন কার্ড, সংশ্লিষ্ট বর্ষের প্রবেশপত্র ও পরীক্ষার ফলাফল এবং পিতা-মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র সংযুক্ত করতে হবে।

১১। একজন শিক্ষার্থী ফলাফল প্রকাশের দিন থেকে ৪৫ (পঁয়তাল্লিশ) দিনের মধ্যে ছাড়পত্রের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।

তবে একজন শিক্ষার্থী একাধিকবার ছাড়পত্র নিতে পারবে না ।

নিচের বিজ্ঞপ্তি হতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কলেজ পরিবর্তনের নিয়মাবলির বিস্তারিত জানুন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় টিসির মাধ্যমে কলেজ ট্রান্সফার নিয়মাবলী

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ ট্রান্সফার হওয়ার নিয়ম সম্পর্কে আরো জানার থাকলে আমাদের লিখে জানান।

তথ্যটি সবাইকে জানাতে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন।

আরো দেখুন:

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ১ম বর্ষ ফরম ফিলাপ ১২ মে-৯ জুন ২০২২

ইনকোর্স পরীক্ষা সংক্রান্ত জরুরী বিজ্ঞপ্তি: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

তথ্যসূত্র-

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

Share This:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।