প্রাইমারি নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা: প্রার্থীর হাতের লেখা যাচাই যেভাবে

২০২২ সালের প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীর হাতের লেখা যাচাই করা হবে বলে সতর্ক করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)।

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীর হাতের লেখা যাচাই করা সংক্রান্ত বিশেষ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই) প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ এর মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীদের হাতের লেখা যাচাই করার বিষয়ে বিশেষ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

প্রাইমারি নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষার সময়, প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষার ওএমআর শীটের হাতের লেখা মিলিয়ে দেখা হবে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

লিখিত পরীক্ষায় ভিন্ন কোন ব্যক্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে কীনা, তা নিশ্চিত হতে মৌখিক পরীক্ষায় প্রার্থীর হাতের লেখা যাচাই করা হবে বলে জানা গেছে।

২ জুন ২০২২ খ্রি. তারিখে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে, প্রার্থীদের হাতের লেখা যাচাইয়ের তথ্যটি নিশ্চিত করা হয়েছে।

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগে জালিয়াতি প্রতিরোধ করতে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে প্রাথমিক অধিদপ্তর থেকে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

আরো জানুন:

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার রেজাল্ট ২০২২ (১ম ধাপ)

Primary Teacher News Update: DPE Notice Office Order Gazette

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় হাতের লেখা যেভাবে যাচাই হবে

প্রাথমিক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা গ্রহণের সময় প্রার্থীগণ ওএমআর শীটের Textbox-এ ইংরেজি ও বাংলায় ২টি অনুচ্ছেদ স্বহস্তে লিখেছেন।

মৌখিক পরীক্ষার সময় লিখিত পরীক্ষার ওএমআর শীটের বাংলা ও ইংরেজী হাতের রেখা মিলিয়ে দেখা হবে। এভাবে প্রার্থীর হাতের লেখা যাচাই করা হবে।

যাচাইকালে Textbox--এ ইংরেজি ও বাংলার লেখা হাতের লেখার সাথে মিল পাওয়া না গেলে, প্রার্থীতা বাতিলসহ তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২০-এর ১ম ও ২য় ধাপের লিখিত পরীক্ষা যথাক্রমে ২২ এপ্রিল ২০২২ এবং ২০ মে ২০২২ খ্রি. তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এরই মধ্যে ১ম ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল ১২ মে ২০২২ খ্রি. তারিখে প্রকাশিত হয়েছে। ২য় ধাপের ফল শীঘ্রই  প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে  প্রাথমিক অধিদপ্তর।

সবশেষ ৩য় ধাপের লিখিত পরীক্ষা ০৩ জুন ২০২২ খ্রি. তারিখ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সব ধাপের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে।

মোট ২০ নম্বরের মোখিক পরীক্ষায় সনদের জন্য ১০ নম্বর এবং ব্যক্তিত্ব, প্রকাশ ক্ষমতা, সাধারণ জ্ঞান ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের জন্য ১০ নম্বর নির্ধারণ করা হয়েছে।

লিখিত পরীক্ষায় ৮০ নম্বর ও মৌখিক পরীক্ষায় ২০ নম্বর মিলিয়ে ১০০ নম্বরের মধ্যে প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাতালিকা প্রস্তুত করা হবে।

আরো দেখুন:

প্রাথমিক নিয়োগের ভাইভা (মৌখিক) পরীক্ষার নম্বর বিভাজন যেভাবে

প্রাথমিক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা সংক্রান্ত জরুরী বিজ্ঞপ্তি ২০২২

তথ্যসূত্র-

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

Share This:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।