প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে ৬৫% কোটায় প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি

প্রাথমিক বিদ্যালয় এর সহকারি শিক্ষক থেকে ৬৫% কোটায় প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি পাবেন। পদোন্নতির জন্য সহকারি শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতার তালিকা প্রস্তুত করতে নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক থেকে ৬৫% কোটায় প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি সংক্রান্ত নোটিশ ২০২২

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকদের ৬৫% কোটায় প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতির জন্য জ্যেষ্ঠতা তালিকা চূড়ান্তকরণের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এসব শিক্ষকদের পদোন্নতির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও তথ্যাদি প্রেরণ করতে বলা হয়েছে।

সহকারি শিক্ষকদের পদোন্নতির জন্য জ্যেষ্ঠতার তালিকা প্রস্তুতে ‘সমন্বিত গ্রেডেশন ব্যবস্থাপনা’ ইউজার ইন্টারফেসে স্কুল ও শিক্ষকদের তথ্য এন্ট্রি ও অনুমোদন দিতে মাঠ পর্যায়ের শিক্ষা কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

২৭ অক্টোবর ২০২২ খ্রি. তারিখের মধ্যে শিক্ষকদের এসব তথ্য এন্ট্রি ও অনুমোদন দিতে হবে। একই সাথে জ্যেষ্ঠতার তালিকার আপত্তি নিষ্পত্তির জন্য তা বিজ্ঞপ্তি আকারে সব উপজেলা শিক্ষা অফিসের নোটিশ বোর্ডে প্রদর্শন ও ওয়েবসাইটে আপলোড করতে বলা হয়েছে।

১১ অক্টোবর ২০২২ খ্রি. তারিখে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে, সব জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের এসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। (বিজ্ঞপ্তি নিচের অনুচ্ছেদে দেখুন)।

আরো জানুন:

প্রাথমিক শিক্ষক বদলি নীতিমালা (১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ প্রকাশিত প্রজ্ঞাপন)

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাপ্তাহিক ছুটি শুক্রবার ও শনিবার: প্রজ্ঞাপন

Primary and Mass Education Ministry Notice (mopme.gov.bd)

প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের পদোন্নতি জন্য জ্যেষ্ঠতা তালিকা চূড়ান্তকরণের নির্দেশনা

অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে ৬৫ শতাংশ কোটায় পদোন্নতিযোগ্য শূন্যপদ পূরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

দ্রুত পদোন্নতি প্রদানের জন্য যেসব উপজেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতার তালিকা প্রস্তুতে ‘সমন্বিত গ্রেডেশন ব্যবস্থাপনা’ ইউজার ইন্টারফেসে শতভাগ বিদ্যালয় ও শিক্ষকদের তথ্য এন্ট্রি ও অনুমোদন হয়নি, সে সব উপজেলায় তথ্য ২৭ অক্টোবরের মধ্যে এন্ট্রি ও অনুমোদন সম্পন্ন করতে হবে।

যেসব উপজেলায় শতভাগ এন্ট্রি ও অনুমোদন সম্পন্ন হয়েছে, সেসব উপজেলায় শিক্ষা কর্মকর্তাদের জ্যেষ্ঠতার তালিকা প্রিন্ট করে আপত্তি নিষ্পত্তি করতে হবে।

আর এ জন্য বিজ্ঞপ্তি আকারে তা উপজেলা শিক্ষা অফিসের দর্শনীয় স্থানে বা নোটিশ বোর্ডে এবং ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে।

জ্যেষ্ঠতার তালিকায় কোনো আপত্তি থাকলে তা উপজেলা শিক্ষা অফিসার তিন দিনের মধ্যে আপত্তি গ্রহণ ও নিষ্পত্তি করবেন।

যদি আপত্তি না থাকে তাহলে তিন কার্যদিবস পর চূড়ান্ত খসড়া জ্যেষ্ঠতারা তালিকা প্রিন্ট করে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা স্বাক্ষর করবেন।

স্বাক্ষরিত জ্যেষ্ঠতার তালিকা থেকে পদোন্নতিযোগ্য শূন্যপদের দেড়গুন শিক্ষকের তালিকা (গত পাঁচ বছরের ২০১৭-২০২১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত) প্রেরণ করতে হবে।

এসব শিক্ষকদের বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন, শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ (শুধু এসএসসির সনদ), প্রশিক্ষণ সনদ (সিইনএড, ডিপিইনএড, বিএড, এমএড) চেকলিস্ট অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট অন্যান্য তথ্য ও প্রত্যয়ন সংযোজন করে ৩ নভেম্বরের মধ্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে পাঠাবেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তারা।

আর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের আগামী ১০ নভেম্বরের মধ্যে সব তথ্য যাচাই করে খসড়া জ্যেষ্ঠতার তালিকা স্বাক্ষর করে তিন কপি বিশেষ বাহক মারফত প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের পলিসি ও অপারেশন বিভাগে পাঠাতে বলা হয়েছে আদেশে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে, উপরোক্ত নির্দেশনার ব্যতয় হলে উপজেলা শিক্ষা অফিসার বা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ব্যক্তিগতভাবে দায়ী থাকবেন।

নিচের যুক্ত প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তি থেকে প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি নোটিশ ২০২২

প্রাথমিক বিদ্যালয় এর সহকারি শিক্ষক হতে কোটায় ৬৫% প্রধান শিক্ষক পদে পদোন্নতি সম্পর্কে আরো জানতে লিখুন।

তথ্যটি সবাইকে জানাতে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন।

আরো দেখুন:

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটির তালিকা ২০২২ (সরকারি-বেসরকারি)

তথ্যসূত্র-

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

Share This:

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 − 5 =