দাখিল পরীক্ষার মানবন্টন (নম্বর বন্টন) নির্দেশিকা ২০২২

২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার মানবন্টন (নম্বর বন্টন), প্রশ্ন পত্রের সময় ও বিষয়ভিত্তিক নম্বর বিভাজন নির্দেশিকা প্রকাশ করেছে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড।

দাখিল পরীক্ষার নম্বর বন্টন (মানবন্টন), প্রশ্ন পত্রের সময় ও বিষয়ভিত্তিক নম্বর বিভাজন নির্দেশিকা ২০২২

২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার বিষয় নির্বাচন, নম্বর বন্টন, প্রশ্নপত্রের সময় ও নম্বর বিভাজন নির্দেশিকা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের মাদ্রাসা শিক্ষা  বোর্ড।

মাদ্রাসা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক কামাল উদ্দিন স্বাক্ষরিত নির্দেশীকায় দাখিল পরীক্ষার মানবন্টনের বিষয়ের তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

দাখিলের প্রশ্নের নম্বর বিভাজন নির্দেশীকাটি বোর্ডের দাপ্তরিক ওয়েবসাইটে (www.bmeb.gov.bd), ১ মার্চ ২০২২ খ্রি. তারিখে প্রকাশিত হয়।

প্রকাশিত দাখিলের নির্দেশীকায়, চলতি সালের অনুষ্ঠিত পরীক্ষার প্রতিটি বিষয়ের পৃথকভাবে প্রশ্নের সময় ও নম্বর বিভাজন করা হয়েছে।

লক্ষ্য করুন: দাখিল পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে। দাখিলের রুটিন সংগ্রহ করতে নিচের প্রতিবেদনটি পড়ুন।

মাদ্রাসা বোর্ড দাখিল পরীক্ষার বিষয়, ফরমপূরণ ও পরীক্ষার সময়সূচি

এবছরের দাখিল সমমান পরীক্ষা ১৯ জুন ২০২২ খ্রি. তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে। করোনার কারণে পরীক্ষার বিষয়, সময় ও মানবণ্টন কমিয়ে দাখিল পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের দাখিল পরীক্ষার ফরমপূরণ শুরু হয়েছে ১৩/০৪/২০২২ খ্রি. তারিখ থেকে।

এবারে দাখিলের টেস্ট পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না। তবে প্রস্তুতিমূলক পরীক্ষা শুরু হবে ১৯/০৫/২০২২ খ্রি. তারিখে।

মাদ্রাসা বোর্ড দাখিল ও এর সমমান এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে ১৯/০৬/২০২২ খ্রি. তারিখ থেকে।

২০২২ সালের দাখিলে যে সব বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না, তার তালিকা দেওয়া হয়ে। এছাড়া যেসব বিষয়ের পরীক্ষার হবে তারও তালিকা প্রকাশ করেছে মাদ্রাসা বোর্ড।

নিচের মাদ্রাসা বোর্ডের বিজ্ঞপ্তি থেকে দাখিল পরীক্ষার সময়সূচি ও পরীক্ষার বিষয় সমূহ সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার সময়সূচি, পরীক্ষার বিষয় ও মানবন্টন

উল্লেখ্য, দাখিলের যেসব বিষয়ের পরীক্ষা নেওয়া হবে, সেসব বিষয়ের পূর্ণমান ও সময় কমিয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আর যেসব বিষয়ের পরীক্ষা হবে না, সেসব বিষয়ের মূল্যায়ন সাবজেক্ট ম্যাপিং-এর মাধ্যমে করা হবে।

পরীক্ষার্থীদের মাঝে পরীক্ষার বিষয়, পূর্ণমান ও সময় সম্পর্কে প্রশ্ন দেখা দিলে, বোর্ড প্রকাশিত নির্দেশীকায় এসব অস্পষ্টতা দূর করা হয়েছে।

এবারের দাখিল পরীক্ষা বোর্ড প্রকাশিত পুনর্বিন্যাসকৃত সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ভিত্তিতে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন করা হবে। সবশেষ দাখিলের বাংলা-ইংরেজী বিষয়ের তিন পত্রের সিলেবাস আরো সংক্ষিপ্ত করে প্রকাশ করা হয়েছে।

দাখিল পরীক্ষা বাংলা-ইংরেজী বিষয়ের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস সংগ্রহ করতে নিচের প্রতিবেদন পড়ুন।

২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার সময় ও নম্বর বন্টন নির্দেশিকা

২০২২ সালের দাখিল পরীক্ষার নিদের্শিকা MCQ/বহুনির্বাচনী ও CQ/রচনামূলক পরীক্ষার সময়ের ব্যপ্তি স্পষ্ট করা হয়েছে।

MCQ/বহুনির্বাচনী পরীক্ষা হবে ২০ মিনিট, আর CQ/রচনামূলক পরীক্ষা ০১ ঘন্টা ৪০ মিনিট ব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে। বহুনির্বাচনী ও রচনামূলক পরীক্ষা একটানা অনুষ্ঠিত হবে, কোন বিরতি থাকবে না।

বিজ্ঞানের বিষয় ছাড়া অন্য সব সাধারণ বিষয়ের MCQ প্রশ্ন থাকবে ৩০ টি। উত্তর দিতে হবে ১৫ টি প্রশ্নের। মোট নম্বর ১৫। সময় ২০ মিনিট।

সাধারণ বিষয়ের CQ/রচনামূলক প্রশ্ন থাকবে ১১ টি, উত্তর দিতে হবে যে কোন ৪ টি প্রশ্নের। মোট নম্বর ৪০। সময় ১ ঘন্টা ৪০ মিনিট।

বিজ্ঞানের বিষয়সমূহে MCQ/বহুনির্বাচনী প্রশ্ন থাকবে ২৫টি আর উত্তর দিতে হবে ১৫টি প্রশ্নের। মোট নম্বর ১৫। সময় ২০ মিনিট।

আর বিজ্ঞানের CQ/রচনামূলক প্রশ্ন থাকবে ৮টি, উত্তর দিতে হবে ৩টি প্রশ্নের। মোট নম্বর ৩০। সময় ১ ঘন্টা ৪০ মিনিট।

তাজভিদ (নসর ও নজম), তাজভিদ বিষয়ের নম্বর বিভাজন একটু ভিন্নভাবে করা হয়েছে।

নিচের যুক্ত নির্দেশীকায়, প্রতিটি বিষয়ের মোট প্রশ্নের সংখ্যা ও কতটি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে তা উল্লেখ করা হয়েছে। সাথে কত সময়ের মধ্যে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তারও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দাখিলের বিষয়ভিত্তিক পরীক্ষার সময় ও নম্বর বন্টন (নম্বর বিভাজন) সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন নিচের যুক্ত বোর্ডের নির্দেশিকা থেকে।

মাদ্রাসা বোর্ড দাখিল পরীক্ষার মানবন্টন ২০২২

দাখিল পরীক্ষার নম্বর বন্টন ও প্রশ্ন পত্রের সময় নির্ধারণ নির্দেশিকা ২০২২

২০২২ সালে অনুষ্ঠিতব্য মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিল পরীক্ষার মানবন্টন সম্পর্কে আরো জানার থাকলে, আমাদের লিখে জানাতে পারেন।

লেখাটি অন্যকে জানাতে সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করে সকলকে জানাতে পারেন।

তথ্যসূত্র-

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড

সবশেষ আপডেট: ০৪/০৫/২০২২ খ্রি. তারিখ ০৮:৪২ অপরাহ্ন।

Share This:

16 Comments

  1. গত ২০১৮সালের জে ডি সি পরিক্ষায় আমার জন্ম তারিখ ২০০৫সাল দেওয়া হয়েছে,, আমি জন্ম সালটা ২০০০ দিতে চাই,, এখন আমায় অনেক বয়স্ক মনে করে তারা।।।

    1. জন্ম সাল হবে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদ অনুযায়ী। জন্ম নিবন্ধনে যে বয়স থাকবে আপনার জেডিসি সনদেও সে বয়স থাকার কথা। আগে দেখুন আপনার জন্ম সনদে কোন বয়স দেওয়া আছে। ধন্যবাদ।

  2. আমি খাগড়াছড়ি মাটিরাঙ্গা উপজেলায় বসবাস করি।এখানকার প্রায় বিদ্যালয়ে ৩২০০ থেকে ৪০০০হাজার টাকা নেওয়া হচ্ছে এটা কতটা যুক্তি আছে।

  3. দাখিল পরিক্ষা ২০২২ এ তো ৫৫নামবার এর বাকি নাম্বার গুলা কোথায় থেকে যোগ হবে মাদ্রাসা থেকে না জে ডি সি /জেএসসি থেকে?

  4. আস সালামু আলাইকুম। দাখিল ২০২২ পরীক্ষার মানবন্টনে দেওয়া আছে গণিতে যে কোনো ৪টি প্রশ্নের উত্তর দেয়া যাবে।অনেকে আবার বলছে যে প্রতিটি বিভাগ থেকে ১টি করে দিতে হবে। আসলে কোনটি সঠিক? জানা খুব জরুরী। দয়া করে জানাবেন।

    1. দাখিলের মানবন্টন সম্পর্কে বোর্ডের যে তথ্য প্রকাশ করেছে তার বিজ্ঞপ্তি এখানে প্রকাশ করা হয়েছে। এর বাইরে আমাদের কাছে কোন তথ্য নেই।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।